satguru

I am a user of satbangla, I am also from bangla community. I want to share and learn about sattelite signal reciving tips and tricks

Member since 12 July 2018

আমার লেখা পোস্টের সংখ্যা 22টি, আমার কমেন্টের সংখ্যা 1টি

ডিশ টিউন করার জন্য যেভাবে স্যাট ফাইন্ডার তৈরি করে ফেললাম নিজেই

July 14, 2018 Basic Tutorial Leave a reply
কেমন আছেন স্যাট বাংলার সকল পাঠক ও সদস্যরা। দেরীতে হলেও সবাইকে জানাচ্ছি ঈদের শুভেচ্ছা। আজ আবার একটি এক্সক্লুসিভ টিপস নিয়ে এলাম স্যাটেলাইট ট্র্যাকার দের জন্য। যারা প্রোফেশনাল বা নিয়মিত স্যাটেলাইট ট্রাকিং করে থাকেন তাদের জন্য স্যাট ফাইন্ডার নতুন নাম নয়। তবে নতুনরা অনেকেই এই ব্যাপারে তেমন একটি জানেন না বা ব্যবহার করেন না। আজ এই পোস্টে নিজের কিছু অভিজ্ঞতা, কিছু সমস্যা ও তার সমাধান নিয়ে আপনাদের সাথে আলোচনা করবো।

বাজারে নানা রকমের স্যাট ফাইন্ডার পাওয়া যায়। গঠনগতভাবে এটি ২ রকম হয়ে থাকে।

  • ডিজিটাল স্যাট ফাইন্ডার
  • এনালগ স্যাট ফাইন্ডার

তবে ইদানিং স্মার্টফোন দিয়েও স্যাট ফাইন্ডারের কাজ করা হয়ে থাকে। তবে সব গুলোর কাজ মূলত একই সিগন্যাল ট্রাক করা। তবে আমার মত যারা সৌখিন স্যটালাইট ট্রাকার তাদের স্যাট ফাইন্ডারের তেমন প্রয়োজন পড়ে না।

তবে ডিশ টিউনিং এর জন্য ছাদে সকল কিছু নিয়ে যাওয়াও তো ঝামেলা। বিশেষ করে আমার নিজের কথা বলি আমার নিজের টিভি এর সাইজ ৩২ ইঞ্চি। এই টিভি নিয়ে তো আর ছাদে যাওয়া প্রয়োজন না! তার সাথে রিসিভার নিতে হয়, ইলেক্ট্রিসিটি লাইন সব আরও নানা কিছু। অর্থাৎ ডিশ টিউনিং এর থেকে বেশি শ্রম দিতে হয় এই সব কিছু নিয়ে টানাটানি করতে। আমি কয়েকদিন এমন সমস্যা সম্মুখিন হওয়ার পর ভাবতে শুরু করলাম এর কি সমাধান হতে পারে। এই সমস্যার সমাধান হতে পারে ডিজিটাল স্যাট ফাইন্ডার। কিন্তু সে তো অনেক টাকার ব্যপার। সব থেকে বড় বিষয় হচ্ছে এটি তো আমার কাজে লাগবে গুটি কয়েক দিন। অন্য সময় তো পড়েই থাকবে।

আমি চিন্তা করতে থাকলাম কিভাবে বাসায় থাকে সব কিছু দিয়েই কোন উপায় বের করা সম্ভব কিনা। তবে পেয়েও গেলাম সমাধান। প্রথমে আমি টিম ভিউয়ার দিয়ে কাজ করলেও। এটায় লাইন কাট ও ইন্টারনেট ব্যহত হয়। অনেক সময় টিউনিং রিয়েলটাইম হয় না। অনেক ডিলে হয়। তবে খুজতে খুজতে শেষ পর্যন্ত একটা সমাধান পেয়ে গেলাম। আসুন বিস্তারিত জেনে নেই।

আমার যা যা লেগেছে
১) ২টি এন্ড্রয়েড ফোন [একটিতে ওটিজি সাপোর্ট থাকতে হবে]।
২) ইজিক্যাপ বা ইজিয়ার ক্যাপ
৩) রাউটার [ভালো রেঞ্জ এর হলে ভালো, যেমন শাওমি রাউটার ৩]
৪) অবশ্যই রিসিভার [আমি সব সময় ইকোলিঙ্ক রিসিভার ব্যবহার করি সিগন্যাল ধরার জন্য, আমার কাছে এটা সুবিধাজনক মনে হয়]
৫) একটি এন্ড্রয়েড অ্যাপ [Screen Stream over HTTP]

যেভাবে করেছি – প্রথমে বলে রাখি যে মোবাইলে ওটিজি সাপোর্ট আছে সেটাকে আমরা স্ক্রিন ট্রান্সমিটার হিসেবে ব্যবহার করবো। সেই মোবাইলে ইজিক্যাপ লাগিয়ে নিন। তারপর উপরে দেওয়া অ্যাপটা ইন্সটল দিয়ে নিন। এবার দুটি মোবাইলই ওয়াইফাইতে কানেক্ট করে নিন। অ্যাপ চালু করলে একটি আইপি দেবে সেটি নোট করে রাখুন। এবার স্টার্ট স্ট্রিম বাটনে ক্লিক করুন। তাহলে আপনার মোবাইল স্ক্রিন শেয়ার করা শুরু করে দেবে। অর্থাৎ এই মোবাইলে যাই হবে সেটাই অন্য মোবাইল থেকে দেখতে পাবেন। তবে ২টি মোবাইলই একই নেটওয়ার্ক এর আওতায় থাকতে হবে। রাউটার ছাড়া সেটা সম্ভব নয়। আর সিম দিয়ে করতে গেলে সেটায় প্রচুর ডাটা খরচ হবে এবং ছবিতে ডিলে হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যেটা ডিশ টিউনিং এ অনেক সমস্যা করবে। ইজি ক্যাপ এর সফটওয়্যার চালু করে মোবাইলে রিসিভারের ভিডিও চালু করে দিন।

এবার ছাদে অন্য মোবাইল নিয়ে যাই। তারপর ব্রাউজারে গিয়ে আগে টুকে রাখা আইপিটা সাবধানতার সাথে ইউআরএল দেওয়ার যায়গায় প্রবেশ করাই। দেখুন রিসিবার এর স্ক্রিন হুবুহু এখন আপনার হাতে। এবার আপনার ইচ্ছা মত আপনি ডিশ টিউন করুন। ছাদে কোন কিছু টানাটানি করা ছাড়াই। যদিও এটা প্রফেশনাল সল্যুশন নয়। তবে এতে আমার কাজ চলে যায়। আজ সেটাই আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম। আশা করি কাজে লাগাবেন। কোন প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই করুন। ভালো থাকবেন ।

Leave a Reply

Please Login to comment
  Subscribe  
Notify of
↑ Top
error: Content is protected !!